Sale!

সুরমা মাছ

সুরমা মাছ – সামুদ্রিক মাছের মধ্যে সুরমা মাছ খুবই সুস্বাদু তাই সুরমা মাছকে ইংরেজিতে ( Kingfish) কিংফিশও বলা হয়ে থাকে। সুরমা মাছের একটি প্রধান বড় কাটা ছাড়া অন্য কোন কাটা নাই, তাই এই মাছ বিদেশি ও ছোট বাচ্চাদের নিকট খুবই জনপ্রিয় একটি মাছ। সুরমা মাছ দেখতে অনেকটা টুনা মাছের মত তাই অনেকেই সুরমা মাছ কিনতে গিয়ে ভুল করে থাকেন।

এটি দেখতে লম্বাটে এবং ছোট চোখ বিশিষ্ট। সুরমা মাছ সুরমার রঙ্গয়ের হয় এবং শরীরে হালকা ডোরা কাটা দাগ থাকে। এই মাছের কোন আঁশ নাই এবং শরীর চকচকে ও মসৃণ হয়। সুরমা মাছের মাংস একটু নরম প্রকৃতির হয়ে থাকে আর স্বাদ হয় মুখে লেগে থাকার মতো। এই মাছ দেখতে “টুনা মাছের” মতো হলেও এই মাছ টুনার মাছের চাইতে সাইজে লম্বা হয়ে থাকে,আর মুখ সরু ও চিকন হয়।

আমাদের দেশে সাধারণত ২ জাতের সুরমা মাছ পাওয়া যায়। যেমন পাতা সুরমা ও রকেট সুরমা। পাতা সুরমা সবচেয়ে সুস্বাদু ও দাম কিছুটা বেশী কিন্তু এটার সাইজ একটু ছোট হয়ে থাকে । আর রকেট সুরমার সাইজ অনেক বড় হয়। এক একটার সাইজ ১০ কেজি পর্যন্ত হতে পারে।

সুরমা মাছের স্বাদ কেমন?

সুরমা মাছ অন্যান্য সামুদ্রিক মাছ থেকে একটু আলাদা স্বাদের হয়ে থাকে। মাছটি প্রায় গন্ধহীন এবং সুস্বাদু ও একটু মিষ্টি স্বাদ রয়েছে সে কারণে যারা সামুদ্রিক মাছ খাওয়া তেমন পছন্দ করেন না, তারাও এই মাছ পছন্দ করেন। এই মাছের মাংসের টেক্সচার দৃঢ়, কিন্তু স্তরযুক্ত (লেয়ারর্ড)। এই মাছে মাঝারি তৈলাক্ত রয়েছে এবং রান্নার বিভিন্ন পদ্ধতির সাথে সহজেই মানিয়ে নিতে পারে।

এই মাছ দিয়ে চমৎকার কাবাব ও সুস্বাদু চপ হয়, এটি ভাজা, রান্না, স্টেক ও স্টিম করে খেতে চমৎকার। সুরমা মাছ টিনজাত মাছ হিসাবেও জনপ্রিয়। সুরমার ফিলেট মাখন ও রসুনের সস দিয়ে ম্যারিনেট করে স্টেক হিসেবে দুর্দান্ত।

উপকারিতা:

সুরমা মাছ পুষ্টিতে উচ্চ, কম ক্যালোরি ও চর্বিযুক্ত কিন্তু প্রোটিন সমৃদ্ধ এবং ওমেগা -৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের একটি দুর্দান্ত উৎস।

এই মাছের তেল মানব দেহের জন্য একটি অপরিহার্য তেল। এটি সুস্থ হার্ট এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে এবং এর টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়।

 

৳ 575.00

Description

সুরমা মাছ- সামুদ্রিক মাছের মধ্যে সুরমা মাছ খুবই সুস্বাদু তাই সুরমা মাছকে ইংরেজিতে ( Kingfish) কিংফিশও বলা হয়ে থাকে।

সুরমা মাছের একটি প্রধান বড় কাটা ছাড়া অন্য কোন কাটা নাই, তাই এই মাছ বিদেশি ও ছোট বাচ্চাদের নিকট খুবই জনপ্রিয় একটি মাছ।

সুরমা মাছ দেখতে অনেকটা টুনা মাছের মত তাই অনেকেই সুরমা মাছ কিনতে গিয়ে ভুল করে থাকেন। এটি দেখতে লম্বাটে এবং ছোট চোখ বিশিষ্ট।

সুরমা মাছ সুরমার রঙ্গয়ের হয় এবং শরীরে হালকা ডোরা কাটা দাগ থাকে। এই মাছের কোন আঁশ নাই এবং শরীর চকচকে ও মসৃণ হয়।

সুরমা মাছের মাংস একটু নরম প্রকৃতির হয়ে থাকে আর স্বাদ হয় মুখে লেগে থাকার মতো।

এই মাছ দেখতে “টুনা মাছের” মতো হলেও এই মাছ টুনার মাছের চাইতে সাইজে লম্বা হয়ে থাকে,আর মুখ সরু ও চিকন হয়।

আমাদের দেশে সাধারণত ২ জাতের সুরমা মাছ পাওয়া যায়। যেমন পাতা সুরমা ও রকেট সুরমা।

পাতা সুরমা সবচেয়ে সুস্বাদু ও দাম কিছুটা বেশী কিন্তু এটার সাইজ একটু ছোট হয়ে থাকে । আর রকেট সুরমার সাইজ অনেক বড় হয়। এক একটার সাইজ ১০ কেজি পর্যন্ত হতে পারে।


সুরমা মাছের স্বাদ কেমন?

সুরমা মাছ অন্যান্য সামুদ্রিক মাছ থেকে একটু আলাদা স্বাদের হয়ে থাকে। মাছটি প্রায় গন্ধহীন এবং সুস্বাদু ও একটু মিষ্টি স্বাদ রয়েছে সে কারণে যারা সামুদ্রিক মাছ খাওয়া তেমন পছন্দ করেন না, তারাও এই মাছ পছন্দ করেন।

এই মাছের মাংসের টেক্সচার দৃঢ়, কিন্তু স্তরযুক্ত (লেয়ারর্ড)। এই মাছে মাঝারি তৈলাক্ত রয়েছে এবং রান্নার বিভিন্ন পদ্ধতির সাথে সহজেই মানিয়ে নিতে পারে।

এই মাছ দিয়ে চমৎকার কাবাব ও সুস্বাদু চপ হয়, এটি ভাজা, রান্না, স্টেক ও স্টিম করে খেতে চমৎকার।

সুরমা মাছ টিনজাত মাছ হিসাবেও জনপ্রিয়। সুরমার ফিলেট মাখন ও রসুনের সস দিয়ে ম্যারিনেট করে স্টেক হিসেবে দুর্দান্ত।

উপকারিতা:

সুরমা মাছ পুষ্টিতে উচ্চ, কম ক্যালোরি ও চর্বিযুক্ত কিন্তু প্রোটিন সমৃদ্ধ এবং ওমেগা -৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের একটি দুর্দান্ত উৎস।

এই মাছের তেল মানব দেহের জন্য একটি অপরিহার্য তেল। এটি সুস্থ হার্ট এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে এবং এর টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়।

Customer Reviews

Customer Rating

৳ 575.00
0
0 Ratings
Stars 5
(0)
Stars 4
(0)
Stars 3
(0)
Stars 2
(0)
Stars 1
(0)

Only logged in customers who have purchased this product may leave a review.

Reviews

There are no reviews yet.

Item added To cart
X